ছেলের কাটা দুই হাত নিয়ে পথে পথে ঘুরছেন বাবা

স্টাফ রিপোর্টার: রাজবাড়ীতে মাদক ব্যবসায়ে বাধা দেওয়ায় মৎস্য খামারি শাহিন খানের (৩০) দুই হাত দু র্বৃত্তরা কেটে ফেলেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে তিনি ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই ঘটনার বিচার দাবি করে একটি পলিথিনের ব্যাগে ছেলের কাটা দুই হাত নিয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াচ্ছেন শাহিনের বাবা হাশেম খান । রবিবার (৪ আগস্ট) জেলা সদরের আলিপুরে এই ঘটনা ঘটে।জানা গেছে, রবিবার দুপুরে জেলা সদরের আলিপুরে বাড়ি থেকে শাহিনকে ফোনে ডেকে নিয়ে তার দুই হাত কেটে ফেলে দুর্বৃত্তরা।

পরে শাহীনকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে রাজবাড়ী সদর হাসপাতাল ও পরে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখান থেকেও তাকে রেফার করা হয় ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন। এদিকে শাহীনের বাবা একটি ব্যাগে শাহীনের কাটা দুই হাত নিয়ে বিচারের দাবিতে সোমবার (৫ আগস্ট) সকালে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয় ও সদর থানায় যান। তার অভিযোগ, এলাকায় মা দকসেবী ও মা দক ব্যাবসায়ীদের এসব অবৈধ কাজ করতে নিষেধ করায় কাল হয়েছে শাহিনের। এ ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত ইসমাইল ও শাহীনের বিরুদ্ধে থানায় মা দক ব্যবসার অভিযোগ রয়েছে বলেও তিনি জানান।

তাদের বিরুদ্ধে সদর থানায় মা দকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলাও রয়েছে। পূর্ব বিরোধের জের ধরে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে দাবি শাহীনের পরিবারের।এ বিষয়ে জানতে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে গেলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) মো. সালাহউদ্দিন বলেন, ‘ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রধান অভিযুক্ত ইসমাইলের আরেক সহযোগী শাহীনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত ও দোষীদের ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।’