জরিমানা আদায়ে ফের চিঠি দিতে হবে গ্রামীণফোনকে | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:
‘গো’ ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা দানের জন্য গ্রামীণফোনকে করা জরিমানার ৩০ কোটি টাকা চেয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) দেয়া তিনটি চিঠি বাতিল ঘোষণা করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে বিটিআরসি আইনের ৬৩ ও ৬৫ ধারা অনুযায়ী চার মাসের মধ্যে নতুন করে গ্রামীণফোনকে চিঠি দিতে বলা হয়েছে।
ওই চিঠির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে গ্রামীণফোনের রিটের প্রেক্ষিতে জারি করা রুল নিষ্পত্তি করে রোববার (২৫ আগস্ট) বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দেন।
রায়ে এনটিটিএন নামের ইন্টারনেট সার্ভিসের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও তা ২০১৬ সাল পর্যন্ত অব্যাহত রাখায় রাষ্ট্রের কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা অডিটর জেনারেল-এর মাধ্যমে নিরূপণ করতে বিটিআরসির প্রতি নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।
আদালতে রিট আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার জুনায়েদ আহমেদ চৌধুরী। বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার খন্দকার রেজা-ই-রাকিব।
রায়ের পর ব্যারিস্টার খন্দকার রেজা-ই-রাকিব সাংবাদিকদের বলেন, ওই সার্ভিস চালু রাখার মাধ্যমে রাষ্ট্রের কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে তা অডিটর জেনারেলের মাধ্যমে নিরূপণের জন্য বিটিআরসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।
‘গো’ ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাকে অবৈধ ঘোষণার কারণ হিসেবে বিটিআরসির পক্ষ থেকে বলা হয়, টেলিযোগাযোগ আইন অনুযায়ী- কোনো মোবাইল ফোন অপারেটর সরাসরি তাদের অপটিক্যাল ফাইবারের মাধ্যমে এ ধরনের ‘লাস্ট মাইল কানেকটিভিটি’ সেবা দিতে পারে না। লাস্ট মাইল কানেকটিভিটি হলো অপটিক্যাল ফাইবারের মাধ্যমে ইন্টারনেটের সর্বশেষ পর্যায়ের সংযোগ।
কিন্তু গ্রামীণফোন ‘গো’ ব্রডব্যান্ড সেবার নামে সোনালী ব্যাংককে সরাসরি ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা দিচ্ছে- এমন অভিযোগ তোলে ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি)। ২০১৬ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি বিটিআরসি’র কাছে তারা লিখিত অভিযোগ দেয়।
অবৈধ সেবা দেওয়ার কারণ জানতে ওই বছরের মার্চের শেষ দিকে গ্রামীণফোনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয় বিটিআরসি। কিন্তু সন্তোষজনক উত্তর না পাওয়ায় গ্রামীণফোনকে জরিমানার সিদ্ধান্ত হয়।
এরপর ৩০ কোটি টাকা জরিমানা করে তা পরিশোধ করতে ওই বছরের ৬ ও ২৯ নভেম্বর এবং ২০১৭ সালের পহেলা জানুয়ারি পৃথক তিনটি চিঠি দেয় বিটিআরসি। এই চিঠির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে ২০১৭ সালে রিট আবেদন করে গ্রামীনফোন। রিট আবদেনের পরিপ্রেক্ষিতে ওই বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট রুল জারি করেন এবং তিনটি চিঠির কার্যকারিতা স্থগিত করেন। সেই রুলের ওপর রোববার রায় দেওয়া হয়।

বাসচাপায় নিহত ১, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:
গাজীপুর মহানগরীর ভোগড়া চৌধুরী বাড়ি সংলগ্ন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বাসচাপায় এক ব্যক্তির নিহত হওয়ার ঘটনায় বাসে আগুন এবং যানবাহনে ভাঙচুর করেছে বিক্ষুব্ধ জনতা। নিহতের পরিচয় জানা যায়নি।
রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাত দশটার দিকে গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে বাসের আগুন নেভায়।

বাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম কাওসার আহমেদ চৌধুরী জানান, ঢাকাগামী অনাবিল পরিবহনের একটি বাস অজ্ঞাত পরিচয়ের এক ব্যক্তিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা বলাকা পরিবহনের একটি বাসে অগ্নিসংযোগ করে এবং বেশকিছু যানবাহনে ভাঙচুর চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ আনে।
রাত সাড়ে দশটা থেকে ভোগড়া বাইপাস মোড় হতে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। পুলিশ যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করতে কাজ করছে।
মো. আমিনুল ইসলাম/এমএসএইচ
সূত্র জাগো নিউজ

লৌহজংয়ে বাঘ আতংক! | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার: শনিবার মধ্য রাত থেকে ঘড়ে বেড়াচ্ছে বাঘদুটি মেছো বাঘ ঘুরে বেড়াচ্ছে লৌহজং উপজেলার খিদিরপাড়া ইউনিয়নের ফুলকুচি ও পাশের রসকাটি গ্রাম। শনিবার মধ্য রাত থেকে বাঘ দুটিকে দেখতে পায় এলাকাবাসী।
শনিবার রাতে বাড়ির পাশে ধনঞ্চে খেতে বাঘ দুটি দেখে উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন স্থানীয়রা। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ কাবিরুল ইসলাম খান ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. মোরাদ আলী ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তারাও বাঘ দুটিকে এলাকায় বিভিন্ন ঝোঁপ-জঙ্গলে ঘুরাফেরা করতে দেখেন।
রাতে এলাকাবাসীকে সাবধান করতে বিভিন্ন মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেয়া হয়। বলা হয়, এলাকায় বাঘ দেখা গেছে রাতের অন্ধকারে কেউ একা বের হবেন না। দলবদ্ধভাবে রাস্তায় বের হওয়ার নির্দেশ দেয়া হয় জনগণকে।
রাতে লৌহজং থানাকে নির্দেশ দেয়া হয়, বাঘ আতংকিত এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করার জন্য। সারা রাত এলাকায় পুলিশ পাহারা চলে।
রোববার সকালে ফুলকুচি ও পার্শ্ববর্তী গ্রাম রসকাটি এলাকায় সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, এলাকার যুবক, কিশোর ও বয়স্ক অনেকেই দল বেঁধে হাতে লাঠিসোটা নিয়ে পাহারা দিচ্ছেন।
ফুলকুচি গ্রামের সাইফুল ইসলাম জানান, সকালেও ফুলকুচি গ্রামের কবরস্থানের সামনে একটি ধনঞ্চে খেতে বাঘ দুটিকে অনেকে দেখতে পেয়েছেন।
ফুলকুচি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লুৎফর নাহার জানান,বাঘ আতংকে অনেক বাচ্চা আজকে স্কুলে আসতে দেয়নি অভিভাবকরা। যারা স্কুলে এসেছে তাদের আমরা স্কুলের আঙ্গিনার মধ্যে রাখছি বাইরে যেতে দিচ্ছি না।
স্কুল থেকে বের হয়ে দেখা গেছে, এক অভিভাবক হাতে লাঠি নিয়ে স্কুল থেকে বাড়ি যাচ্ছেন। তিনি বলেন, বাঘের কথা শুনার পর বাচ্চাকে স্কুলে দিয়ে গিয়েছিলাম লাঠি হাতে নিয়ে।
এলাকার ছোট ছোট বাজার ও দোকানপাটে লোকের সমাগম অন্যান্য দিনের চেয়ে কম দেখা গেছে।
এই বিষয়ে এলাকাবাসী মাকসুদ জানান, শনিবার রাত থেকে এই এলাকায় দুটি বড় রকমের মেছো বাঘ দেখা যাওয়ায় এলাকাবাসী আতংকের মধ্যে রয়েছেন।
তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, বাঘ দুটিকে ধরতে বন বিভাগকে খবর দেয়া হয়েছে, বন কর্মকর্তারা দ্রুত আসবেন বাঘ দুটি ধরতে। তবে মেছো বাঘ দুটি হিংস্র নয়, তার কারণ ২৪ ঘণ্টা পার হলেও তারা কোনো মানুষকে ক্ষতি করেনি। সূত্র যুগান্তর

নিজের ফ্ল্যাট গোপন রেখে প্লট চেয়েছেন রুমিন | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:
সরকার ও বর্তমান সংসদকে বারবার অবৈধ বলে দাবি করে আলোচনায় আসা বিএনপির সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানার নামে ঢাকায় ফ্ল্যাট থাকলেও তা গোপন করে সরকারের কাছে ১০ কাঠার প্লট দাবি করেছেন।
রাজধানীর পূর্বাচলে ১০ কাঠার প্লট চেয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমকে দেয়া চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেন, ‘ঢাকা শহরে আমার কোনো জায়গা/ফ্ল্যাট/জমি নাই। ওকালতি ছাড়া আমার অন্য আর কোনো ব্যবসা বা পেশা নাই। এ জন্য ঢাকাস্থ পূর্বাচল আবাসিক এলাকায় ১০ কাঠা প্লটের প্রয়োজন।’
অথচ নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া হলফনামা থেকে জানা গেছে, রাজধানীর নিউ এলিফ্যান্ট রোডে তার একটি ফ্ল্যাট রয়েছে। সেটাকে তিনি স্থায়ী ঠিকানা হিসেবেও হলফনামায় লিখেছেন।
তিনি হলফনামায় আরও লিখেছেন, আনুমানিক ১৮৫০ বর্গফুটের সেই ফ্ল্যাটটি তিনি তার মায়ের কাছ থেকে পেয়েছেন।
প্লট চাওয়ার তার সেই চিঠিটি ইতোমধ্যে ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। চলতি মাসের ৩ তারিখ চিঠিটি তিনি দিয়েছেন। চিঠিতে তিনি আরও উল্লেখ করেন, ‘আমার নামে ১০ কাঠার প্লট বরাদ্দ করলে আমি আপনার কাছে চিরকৃতজ্ঞ থাকব’।
এ বিষয়ে জানতে চিঠিতে উল্লেখ করা রুমিনের নম্বরে একাধিকবার ফোন দিলেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।
অনেক নাটকীয়তার পর বিএনপির এমপিরা শপথ নেয়ার পর সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি হিসেবে মনোনয়ন পান রুমিন। এরও আগে টেলিভিশন টকশোর পরিচিত মুখ ব্যারিস্টার রুমিন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন চেয়ে আলোচনায় আসেন।
তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসন থেকে মনোনয়ন চান। তবে এই আসনে উকিল আবদুস সাত্তারকে মনোনয়ন দেয় বিএনপি। নিজ এলাকার মানুষের কাছে তেমন পরিচিতি না থাকলেও কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে রুমিন ফারহানার পরিচিতি রয়েছে।
এমপি হিসেবে শপথ নিয়েই সেই সংসদকে অবৈধ বলে দাবি করায় আবার আলোচনায় আসেন তিনি। সংসদে বক্তব্য দিতে গিয়ে চলমান সংসদকে অবৈধ বলা ছাড়াও সরকারের সমালোচনায় মুখর এই এমপি। এছাড়া দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়েও একাধিকার বক্তব্য রেখেছেন তিনি।
নির্বাচন কমিশনে জমা দেয়া রুমিন ফারহানার হলফনামা।

১৫ বছর পর জন্ম দেয়া সন্তানটিকে খুঁজে পেলেন মা | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:
কুমিল্লার লাকসাম উপজেলায় গভীর রাতে মা-বাবার পাশ থেকে ঘুমন্ত অবস্থায় চুরি হওয়া মাসুদুর রহমান নামে ১১ মাস বয়সের শিশুটি ২৪ ঘণ্টা পর ফিরে পেয়েছে মায়ের কোল।
শনিবার রাত ৩টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে মনোহরগঞ্জ উপজেলার কেশতলা গ্রামের রাস্তার পাশের একটি মসজিদের পেছন থেকে কান্নারত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়।
হারানো সোনার মানিককে ফিরে পেয়ে বুকে জড়িয়ে ধরে মা-বাবা কান্নায় ভেঙে পড়েন। ১৫ বছরের দাম্পত্য জীবনের একমাত্র সন্তানকে ফিরে পেয়ে আনন্দে কেঁদে ফেলেন ওই দম্পতি।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাতে উপজেলার মুদাফরগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়নের শ্রীয়াং দক্ষিণ পাড়ার রাজন ভূঁইয়া বাড়ির শফিকুর রহমান ও স্ত্রী সালমা বেগম শিশুটিকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। গত শনিবার ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় অজ্ঞাত চোরেরা কৌশলে ঘরের দরজা খুলে মা-বাবার পাশ থেকে শিশুটিকে চুরি করে নিয়ে যায়। সকালে ঘুম থেকে উঠে সন্তানকে না পেয়ে মা-বাবা কান্নাকাটি করতে থাকেন। এ সময় বাড়ির লোকজন ছুটে আসে। আশপাশের ঘরে খোঁজাখুঁজির পর এলাকার বিভিন্ন স্থানে মাইকিং করা হয়। সংবাদ পেয়ে কুমিল্লা জেলা সহকারী পুলিশ সুপার (লাকসাম সার্কেল) ইমরান রহমানসহ পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
ওই ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেন। শনিবার রাত ৩টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে মনোহরগঞ্জ উপজেলার কেশতলা গ্রামের রাস্তার পাশের মসজিদের পেছনে একটি শিশুর কান্নার শব্দ পেয়ে স্থানীয়দের বিষয়টি জানান মসজিদের ইমাম। আশপাশের লোকজন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ শিশুটিকে থানায় নিয়ে আসে এবং রোববার আদালতের মাধ্যমে মা-বাবার কাছে হস্তান্তর করে। এ সময় হারানো সন্তানকে ফিরে পেয়ে বুকে জড়িয়ে ধরে কান্নায় ভেঙে পড়েন বাবা-মা।
এলাকাবাসী জানায়, ১৫ বছরের দাম্পত্য জীবনে তাদের কোনো সন্তান নেই। একটি সন্তানের আশায় তারা দীর্ঘদিন ঘুরেছেন ডাক্তার-কবিরাজ, ফকির-দরবেশসহ নানা চিকিৎসালয়ে। বহু চিকিৎসার পর অবশেষে ১১ মাস আগে তাদের কোলজুড়ে একটি পুত্রসন্তান আসে। সে সন্তানটি শনিবার রাতে চুরি হয়ে যায়।
এ বিষয়ে লাকসাম থানা পুলিশের ওসি মো. নিজাম উদ্দিন বলেন, চুরি হওয়া শিশুটিকে প্রায় ১ কিলোমিটার দূরে রাস্তার পাশের একটি মসজিদের পেছন থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। রোববার আদালতের মাধ্যমে শিশুটিকে মা-বাবার কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
মো. কামাল উদ্দিন/এএম/জেআইএম
সূত্র জাগো নিউজ

ফোন বন্ধ আছে থাক, প্রাণহানি তো হয়নি: কাশ্মীর গভর্নর | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার: জম্মু-কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক। ফাইল ছবিফোন বন্ধ আছে থাক, প্রাণহানি তো হয়নি। যোগাযোগ ব্যবস্থার অভাবের চেয়ে মানুষের মৃত্যু রোখা বেশি ভালো মন্তব্য করেছেন জম্মু-কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক।
রোববার দিল্লিতে প্রয়াত অরুণ জেটলির শেষকৃত্যে যোগ দিয়ে এ মন্তব্য করেন জম্মু কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক। এ সময় তিনি উপত্যকায় খাবার ও অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীর যোগানের অভাব নেই বলেও দাবি করেন। তবে সব পরিষেবা খুব শীঘ্রই চালু করা হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। এ খবর জানিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা।
গত ৫ আগস্ট ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করার পর থেকেই জম্মু কাশ্মীর কার্যত গোটা ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। মোবাইল, ইন্টারনেট, কেবল, ল্যান্ডলাইনসহ যোগাযোগের সমস্ত মাধ্যম বন্ধ করে উপত্যকায় জারি করা হয় কারফিউ। এখনও ওই অঞ্চলে মোতায়েন রয়েছে ৫০ হাজারের বেশি অতিরিক্ত সেনা ও নিরাপত্তা কর্মী-কর্মকর্তা।
কিছু কিছু অংশে ল্যান্ডলাইন পরিষেবা চালু হলেও তা প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল বলে অভিযোগ কাশ্মীরিদের।
আর কত দিন এভাবে প্রায় সব পরিষেবা বন্ধ রেখে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হবে উপত্যকাকে বিরোধীদের এমন প্রশ্নের জবাবে সত্যপাল মালিক সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেন, যখনই জম্মু কাশ্মীরে কোনো সঙ্কট তৈরি হয়েছে, প্রথম সপ্তাহেই অন্তত ৫০ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু ৩৭০ অনুচ্ছেদ পর্বে এখনও পর্যন্ত উপত্যকার কোথাও একজন মানুষেরও মৃত্যু হয়নি-দাবি করেছেন জম্মু-কাশ্মীরের এ গভর্নর।
ফোন চালুর বিষয়ে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে কাশ্মীর গভর্নর সত্যপাল বলেন, আমরা চাই একজন মানুষেরও মৃত্যু যেন না হয়। তাতে ১০ দিনের জন্য যদি টেলিফোন বন্ধ থাকে, থাক। তবে আমরা শীঘ্রই এসব সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করব। জম্মু কাশ্মীরে রয়েছে মোট ৯৭টি টেলিফোন এক্সচেঞ্জ। প্রশাসন জানায়, তার মধ্যে ২৫টি এক্সচেঞ্জে স্বাভাবিক কাজকর্ম চালু হয়েছে।
এখনও জম্মু কাশ্মীরের বিস্তীর্ণ অংশে কারফিউ জারি রয়েছে। যান ও সাধারণ মানুষের গতিবিধির ওপর নিষেধাজ্ঞা বা নজরদারি রয়েছে অধিকাংশ জায়গায়।
উপত্যকার মানুষের অভিযোগ, খাবার, ওষুধ ও অন্যান্য নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রীতেও টান পড়ছে। গভর্নর যদিও এদিন দাবি করেছেন, কাশ্মীরে নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী বা ওষুধের কোনও ঘাটতি নেই। ঘটনা হল, ঈদের সময় আমরা বাড়ি বাড়ি মাংস, শাক-সবজি, ডিম পৌঁছে দিয়েছিলাম। এরপর প্রশ্নকর্তা সাংবাদিকের উদ্দেশে বলেন, ১০-১৫ দিনের মধ্যেই আপনার অভিমত পাল্টে যাবে। সূত্র যুগান্তর

গৃহবধুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন: ৪ আসামির জামিন নামঞ্জুর | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার: প্রকাশিত: ৯:১৪ অপরাহ্ণ, ২৫ আগস্ট ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

শেরপুরের নকলায় ডলি খানম (২২) নামে অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের চাঞ্চল্যকর মামলায় হাজতি ৪ আসামির জামিনের আবেদন ফের নামঞ্জুর হয়েছে।
রবিবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে উভয় পক্ষের দীর্ঘ শুনানী শেষে জেলা ও দায়রা জজ মোঃ মুজিবুর রহমান তাদের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন।
এরা হচ্ছেন নির্যাতিতা গৃহবধূর ভাসুর আবু সালেহ (৫২), সলিমুল্লাহ (৪৪), জা লাখী আক্তার (৩৪) ও তাদের আত্মীয় তোফাজ্জল হোসেন (৫৫)। একইসাথে আদালত ইসমাইল হোসেন (২০) নামে এক আসামিকে পুলিশ রিপোর্ট দাখিল পর্যন্ত অন্তবর্তীকালীন জামিন মঞ্জুর করেছেন।
এ নিয়ে এ মামলায় এক নারী আসামিসহ এখন পর্যন্ত ২ আসামির জামিন হলো। অন্যদিকে ওই মামলায় এখনও পলাতক রয়েছেন সেনাসদস্য নেছার উদ্দিন, স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর রূপালী বেগম ও তার স্বামী আমিরুল ইসলাম।
দায়রা আদালতে আসামিদের জামিন নামঞ্জুরের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ভারপ্রাপ্ত পিপি এডভোকেট অরুন কুমার সিংহ রায়। অন্যদিকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নকলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন বলেন, মামলার তদন্তের ক্ষেত্রে অনেকটাই অগ্রগতি হয়েছে। পলাতক আসামিদের গ্রেফতারেও চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ১০ মে নকলা উপজেলার কায়দা গ্রামে জমিসংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ওই অন্ত:স্বত্ত্বা গৃহবধূকে গাছে বেঁধে বর্বরোচিত নির্যাতন এবং নির্যাতনে গৃহবধূর গর্ভের সন্তান নষ্টের ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় ৩ জুন আদালতে একটি নালিশী মামলা দায়ের করেন নির্যাতিতা গৃহবধূর স্বামী। এরপর নির্যাতনের একটি ভিডিও ভাইরাল হলে তোলপাড় শুরু হয়। এর প্রেক্ষিতে পুলিশ সুপার কাজী আশরাফুল আজীমের দ্রুত পদক্ষেপে গত ১১ জুন এক সেনা সদস্যসহ ওই গৃহবধূর ৩ ভাসুর ও জাসহ ৯ জনকে স্ব-নামে ও অজ্ঞাতনামা আরও ৩/৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা গ্রহণ করা হয়।
কেএ/ডিএ

কত খরচ হবে ই-পাসপোর্ট পেতে? | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:
ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট (ই-পাসপোর্ট) চালু হচ্ছে আগামী সেপ্টেম্বর মাস থেকে। সে ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ফি ১২ হাজার টাকা আর সর্বনিম্ন ফি সাড়ে ৩ হাজার টাকা হবে ই-পাসপোর্টের ফি। এতে কোনো ভ্যাট সংযুক্ত হবে না। পাসপোর্ট তৈরি ও বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে প্রধানমন্ত্রী সময় দিলে। কোনো সত্যায়নের প্রয়োজন হবে না ই-পাসপোর্টে কাগজপত্রের। এ তথ্য জানা গেছে পাসপোর্ট অধিদফতর সূত্রে।
পরিপত্রে বলা হয়েছে, বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাসে সাধারণ আবেদনকারীর জন্য সর্বোচ্চ ফি ২২৫ ডলার এবং সর্বনিম্ন ফি ১০০ ডলার। বিদেশে বাংলাদেশ দূতাবাসে শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের জন্য সর্বোচ্চ ফি ২২৫ ডলার এবং সর্বনিম্ন ফি ৩০ ডলার। সবক্ষেত্রে ই-পাসপোর্ট হবে ৪৮ ও ৬৪ পৃষ্ঠার। তিন ক্যাটাগরিতে দেওয়া হবে ই-পাসপোর্ট। সে অনুযায়ী ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।
জানা যায়, ৪৮ পৃষ্ঠার পাঁচ বছর মেয়াদি সাধারণ ফি ৩ হাজার ৫০০ টাকা, জরুরি ফি ৫ হাজার ৫০০ টাকা ও অতিজরুরি ফি ৭ হাজার ৫০০ টাকা। ১০ বছর মেয়াদি সাধারণ ফি ৫ হাজার টাকা, জরুরি ফি ৭ হাজার ও অতিজরুরি ফি ৯ হাজার টাকা। বাংলাদেশে আবেদনকারীদের জন্য ৬৪ পৃষ্ঠার পাঁচ বছর মেয়াদি সাধারণ ফি ৫ হাজার ৫০০ টাকা, জরুরি ফি ৭ হাজার ৫০০ ও অতিজরুরি ফি ১ হাজার ৫০০ টাকা। ১০ বছর মেয়াদি সাধারণ ফি ৭ হাজার টাকা, জরুরি ফি ৯ হাজার ও অতিজরুরি ফি ১২ হাজার টাকা।
অনলাইনেই পূরণ করা যাবে ই-পাসপোর্টের আবেদনপত্র। এছাড়া পিডিএফ ফরম্যাট ডাউনলোড করে কম্পিউটারে ফরমটি পূরণ করা যাবে। ই-পাসপোর্টের আবেদনপত্র জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্মনিবন্ধন সনদ অনুযায়ী পূরণ করতে হবে।
যার জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নেই, তাদের পিতা এবং মাতার জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নম্বর অবশ্যই উল্লেখ করে ফরম পূরণ করতে হবে। আবেদনকারীর বয়স ১৮ বছরের নিচে হলে জন্মনিবন্ধন সনদ লাগবে। ১৮ বছরের নিচে সব আবেদনকারীর ই-পাসপোর্টের মেয়াদ হবে পাঁচ বছর।
দেশের অভ্যন্তরে রেগুলার পাসপোর্ট রি-ইস্যুর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সাত কর্মদিবসের মধ্যে দেওয়া হবে। জরুরি পাসপোর্ট রি-ইস্যুর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দেওয়া হবে। অতিজরুরি পাসপোর্ট রি-ইস্যুর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দেওয়া হবে।
কূটনৈতিক পাসপোর্ট পেতে আবেদনকারীদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কনস্যুলার অ্যান্ড ওয়েলফেয়ার উইং বা প্রযোজ্য ক্ষেত্রে বহির্গমন ও পাসপোর্ট অধিদফতরের প্রধান কার্যালয় বরাবর আবেদন করতে হবে। পাসপোর্ট রি-ইস্যুর ক্ষেত্রে কোনো অতিরিক্ত তথ্য সংযোজন বা ছবি পরিবর্তনের প্রয়োজন না হলে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিতির দরকার নেই।

৮১ স্থাপনা উচ্ছেদ, বাদ পড়েনি চারতলা ভবনও | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার:
নগরের মহেশখাল দখল করে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের প্রথম দিনে একটি চারতলা ভবনসহ ৮১টি স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। রোববার (২৫ আগস্ট) সকালে অভিযান পরিচালনা করেছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (চউক) এর স্পেশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল আলম চৌধুরী।
তিনি জানান, আজ উচ্ছেদ করা স্থাপনার মধ্যে রয়েছে- ১৪টি পাকা ভবন, ১৮টি সেমিপাকা ঘর, ৩২টি টিনশেড ঘর, ১১টি কাঁচাঘর এবং ৬টি বাউন্ডারি ওয়াল। সহায়তা করছে মেগা প্রকল্পের বাস্তবায়নকারী সংস্থা বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।
চউকের নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালক আহমেদ মাঈনুদ্দিন জানান, পূর্বের ধারাবাহিকতায় মহেশখালে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে নগরের ১৩টি খালের ওপর গড়ে উঠা সব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করবে চউক।
২০১৮ সালের ৯ এপ্রিল চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে গৃহীত মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সঙ্গে চউকের সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হয়। এ চুক্তির আওতায় সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর এ প্রকল্পের কাজ বাস্তবায়ন করছে। এ লক্ষ্যে খালের উভয় পাশে রিটেইনিং ওয়াল, রাস্তা নির্মাণ ও নিচু ব্রিজগুলো ভেঙে উঁচু করার কাজ চলছে। পাশাপাশি খাল থেকে ময়লা পরিষ্কার কার্যক্রমও অব্যাহত আছে।
এমআরএম/জেআইএম
সূত্র জাগো নিউজ

জামালপুরসহ তিন জেলায় নতুন ডিসি | সংবাদ

স্টাফ রিপোর্টার: প্রকাশিত: ১০:০৬ অপরাহ্ণ, ২৫ আগস্ট ২০১৯

জামালপুরের পর এবার চুয়াডাঙ্গা ও খাগড়াছড়িতে নতুন জেলা প্রশাসক (ডিসি) নিয়োগ দিয়েছে সরকার।
আজ রবিবার (২৫ আগস্ট) জনপ্রশাসন থেকে এ সংক্রান্ত পৃথক পৃথক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।
প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব (উপসচিব) মোহাম্মদ এনামুল হককে জামালপুরে, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপসচিব মো. নজরুল ইসলাম সরকার চুয়াডাঙ্গায় ও পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাসকে খাগড়াছড়িতে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।
এছাড়াও অন্য প্রজ্ঞাপনে, চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক গোপাল চন্দ্র দাসকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগে এবং খাগড়াছড়ির জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলামকে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হিসেবে বদলি করা হয়।
উল্লেখ্য, এক নারী অফিস সহকারীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের ঘটনায় জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরকে ওএসডি করা হয়। তার বদলে সেখানে নতুন ডিসি নিয়োগ পেয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব (উপসচিব) মোহাম্মদ এনামুল হক।
এআইআর/ডিএ